বিদেশে বসে গুজব ছড়ালেই ব্যবস্থা

0
69

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ রাষ্ট্রের বা সরকারের কোন বিষয় অথবা রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে অপপ্রচার ও রাষ্ট্রের কোন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি সম্পর্কে দেশে ও বিদেশে কেউ কোন মন্তব্য করলে বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে গুজব ছড়ালে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে আইন শৃংখলা বাহিনী। গুজব মোকাবেলায় জনসচেতনতার সাথে সাথে সাইবার পেট্রোল জোরদার করেছে র‌্যাব ও পুলিশের সাইবার সিকিউরিটি বিভাগ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনের অনিয়ম ও কারচুপি তুলে ধরতে এবং সরকারের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে। ফেসবুক টুইটার ইউটিউব হোয়াটসআপসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষত রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর পরিচালনাকারী অধিকাংশই দেশের বাইরে অবস্থান করছে। ইতোমধ্যে ১৫টি ইউটিউব চ্যানেল ও ৩০০টিরও বেশি ফেইস্ বুক আইডি বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছে আইন শূঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বন্ধ করেছে বাঁশের কেল্ল, বিশ্ব তরুন প্রজন্ম , বিডি পলিটিকোসহ ৪০টি ফেইসবুক পেইজ। এসব আইডির কিছু এডমিনদের সনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম বলেন, এতদিন বিদেশে বসে সরকারের বিরুদ্ধে প্রচারকারীদের বিশ্বাস ছিল তাদের কিছুই হবে না। এখন থেকে গুজব ছড়ালেই যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরন করে দেশে আনার ব্যবস্থা করা হবে। পুলিশ সদর দপ্তর স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দেশে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এই প্রথম বিদেশে অবস্থানকারী গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
রাবের আইন ও গণমধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মাহমুদ খান বলেন, র‌্যাবের সকল ব্যাটলিয়নে সাইবার মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। র‌্যাব সদর দপ্তরে এর কার্যক্রম রয়েছে। সরকার বিরুধী প্রচার প্রচারনা বন্ধে এই বাহিনীর কারিগরি সক্ষমতা এবং দক্ষতাও রয়েছে। যাদের এরই মধ্যে শনাক্ত করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে আর যাদেরকে সনাক্ত করা হয়নি খুব শীঘ্রই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সিআইডি বলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার ঠেকাতে এরই মধ্যে সিআইডি সাইবার সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেছে। এর জনবল কাঠামোয় রয়েছেন ৩২৪জন , অষ্ট্রেলিয়া ,আমেরিকা ,লন্ডন, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ এবং সৌদি আরব, কাতার ও ওমান থেকে বাংলাদেশের সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে এমন কয়েকজনকে সনাক্ত করেছে সিআইডি। বিশেষ করে
বাঁশেরকেল্লা :  https://www.facebook.com/NBasherkella/
বিশ্ব তরুন প্রজন্ম : https://www.facebook.com/BESSTORUNPROJONMO/

বিডি পলিটিকো : https://www.facebook.com/groups/bnwp.official.group/
বাকশাল মুক্ত বাংলাদেশ চাই : https://www.facebook.com/BM0BC/?epa=SEARCH_BOX

এর পেইজের কয়েকজন এডমিন অন্যতম এমনকি এই সব পেজের এডমিনদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে তথ্য প্রযুক্তি আইনে কিন্তু সবাই বিদেশে থাকায় তাদেরকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এর মধ্যে বাঁশের কেল্লা ও বিশ্ব তরুন প্রজন্ম কয়েকবার সরকারের পক্ষ থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়াও ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে সরকারের বিরুদ্বে অপপ্রচার চালাচ্ছে এমন কয়েকজনকে শনাক্ত করা হয়েছে তাদের নাম ও ফেসবুক লিঙ্ক হলো-
নায়েব আলী https://www.facebook.com/nayeb.ali.102
ইলিয়াছ হোসেন https://www.facebook.com/mohammad.elias.946
মোঃ দেলোয়ার হোসাইন https://www.facebook.com/mddelwar.hussain.3
ডালিয়া লাকুরিয়া  https://www.facebook.com/dalialakuria99/
জয়নাল আবেদীন  https://www.facebook.com/profile.php?id=100011114588243

আলী শাহজাদা  https://www.facebook.com/ali.shahajada

জামিল হোসাইন https://www.facebook.com/jamilfeb
প্রমূখ । শনাক্তকারীদের ছবিসহ ফেসবুক আইডির লিঙ্ক দেশের প্রতিটি বিমান বন্দরে ও সংশ্লিষ্ট থানায় দেয়া হয়েছে যাতে করে দেশে আসলে সাথে সাথে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
এ ছাড়াও দেশে বসে গুজব ছড়াচ্ছে এমন কয়েকজনকে শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হয়েছে -তুহিন শেখ,আব্দুর রহমান ,রেজাউল করিম ,জাবের আহমদ প্রমূখ।এদিকে ডিএমপির কাউ্ন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্র্ন্সান্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের [ সিটিটিসি] সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ সূত্রে জানা গেছে ,চলতি মাসে অপ্রপচার ছড়ানোর অভিযোগে ২৪ জনকে গ্রেফতার করেছে তারা । চলতি বছর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে মোট ১ হাজার ৬৭০টি। সাইবার সিকিউরিটি বিভাগের ডিসি আলিক্জ্জুামান বলেন,সাইবার ওয়ার্ল্ডে সরকার বিরুধী প্রচারনা ও গুজব প্রতিরোধে দুই ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। একটি ‘সফট অ্যাপ্রোচ‘ আরেকটি ‘হার্ড অ্যাপ্রোচ‘। সফট অ্যাপ্রোচ অনুযায়ী সঠিক তথ্য সাইবার ওয়ার্ল্ডে তুলে ধরা হবে আর হার্ড অ্যাপ্রোচ অনুযায়ী মামলা ও গ্রেফতারের পদক্ষেপ নেয়া হবে।