স্ট্যান্ড ফর বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে ‘হিউম্যান রাইটসঃ প্রাসপেক্টিভ বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

0
58

ব্রিটেন থেকে সংবাদদাতাঃ
লন্ডন ভিত্তিক প্রবাসি বাংলাদেশীদের মানবাধিকার সংগঠন ‘স্ট্যান্ড ফর বাংলাদেশ’-এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার পূর্ব লন্ডনের একটি হলে ‘‘হিউম্যান রাইটস ঃ প্রাসপেকটিভ বাংলাদেশ’’ বিষয়ক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে এবং সেক্র্রেটারী মোঃ তরিকুল ইসলামের পরিচালনায় উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার কর্মী ও বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহবুব আলী খানসুর। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন অর্গানাইজিং সেক্রেটারী মোহাম্মদ মাসুদুল হাছান। এছাড়া বাংলাদেশী কমিউনিটির বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে ওই সেমিনার আয়োজন করা হয়।
সেমিনারে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার জনগনের ভোটে নির্বাচিত নয়, তাই জনগনের মৌলিক মানবাধিকার পূরনে তাদের কোন আগ্রহ নেই। আর একারনে ভবিষ্যতে দেশে সাংবিধানিক শূন্যতা তৈরী হবার আশঙ্কা রয়েছে। সেই সাথে ভবিষ্যতে বর্তমান অনির্বাচিত সরকারকে বিচারের সম্মূখিন করে তাদের করা সকল অন্যায় ও অবিচারের ন্যায় সঙ্গত বিচারের মাধমে দেশে একটি সুষ্ঠ পরিবেশ তৈরী হবে।
স্ট্যান্ড ফর বাংলাদেশের চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে গনতন্ত্র, আইনের শাসন ও মানুষের নৈতিক-চারিত্রিক অবক্ষয়ের কারনে দুরঅবস্থা বিরাজ করছে। তিনি বলেন, দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদের উপর হামলা চালিয়ে সন্ত্রাসীরা অসভ্য ও বর্বরতার পরিচয় দিয়েছে। বর্তমান সরকারী দলের মদদে পুলিশ ও তাদের পালিত সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক জুলুম-নির্যাতনের মাধ্যমে দেশে যে বাক স্বাধীনতা হরনের সংস্কৃতি চালু হয়েছে এর মূল্য ভবিষ্যত প্রজন্মকে দিতে হবে। এছাড়া আওয়ামী সন্ত্রাসীরা দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের উপর বর্বর হামলা চালিয়ে তাকে রক্তাক্ত করেছিল। সেই হামলারও কোন বিচার হয়নি। এসব হামলা শুধু নির্দিষ্ট কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের উপর নয় বরং দেশের পুরো গণমাধ্যমের উপর হয়েছে। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য তিনি প্রবাসী বাংলাদেশীসহ সকলকে ব্যাপক সামাজিক ও রাজনৈতিক দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।
সংগঠনের সেক্র্রেটারী মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গনতন্ত্র, মানবাধিকার ও মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে ফিরিয়ে এনে দেশ ও জনগনের আকাঙ্খিত সুন্দর বাংলাদেশ উপহার দেয়া সম্ভব।
সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহকারী সেক্রেটারি বেলাল হোসাইন মোল্লা, অর্গানাইজিং সেক্রেটারী মোহাম্মদ মাসুদুল হাছান, আইটি সেক্রেটারী মোঃ তারেক আজিজ রোমান, মিডিয়া সেক্রেটারী মোঃ আমিনুল ইসলাম, ইসতিয়াক হোসাইন, মহিউদ্দিন মাসুদ, বাবুল আহমেদ, মোঃ ফরিদ আহমদ, জয়নাল মোহাম্মদ , আহমেদ সুহান, আবুল কালাম, জাইনাল আবেদীন, মোঃ শাওকত হাসান, মহিউদ্দিন, আহমদ আলী , মোহাম্মদ তারেকুল ইসলাম, মোহাম্মদ মাসুদ বিন ফরিদ, আলী শাহজাদা, কাজী নুরুজ্জামান, সাইফুল ইসলামসহ আরো অনেকে।